প্রথম পাতা বিনোদন

সঙ্গীতশিল্পী দর্শনের গান উত্তাল করে তুলল কলকাতার নতুন প্রজন্মকে

অম্বর ভট্টাচার্য,কলকাতা, তকমা :  সাম্প্রতিক কলকাতার নজরুল মঞ্চে প্রায় ৬০০০ নতুন প্রজন্মের সঙ্গীতপ্রেমীদের নিয়ে এক বৈদ্যুতিক বায়ুমণ্ডল এবং উদ্দীপক শক্তির সাহায্যে দর্শকদের হৃদয়দৃষ্টি মাতিয়ে বিরাট স্বচ্ছন্দে মূলত এবং গানের গানগুলি পরিবেশন করলেন দর্শন রাভল। একটি ইউটিউব সেন্সশন- দর্শক-সোনি মিউজিক ও তার অনুসারীরা মুক্তি পায় তার একক ‘তেরা জিকর’ এর জন্য ১৪ লাখেরও বেশি শ্রোতাদের কাছে পৌঁছেছেন এবং আরো মজা পাওয়ার আশায় এই সন্ধ্যায় তার সঙ্গীতভক্ত্ররা অনুরোধ করতে পারেনি। দর্শন তার গানের দুনিয়া প্রবেশ করেন গুজরাটের “নয়ন নে বন্ধ রাখিনে” দিয়ে। এরপর তিনি এ আর রহমানের হুম্মা হুম্মা ছাড়াও তার পুরানো দিনের ‘বন্ধন পে সিতারে’, ‘মেরে স্বপ্নো কি রানী’ এবং ‘গুলবী আখেন জো তারী’ গানের মধ্যে সমানভাবে সুরেলা দেখিয়েছেন দর্শকদের। কিন্তু নতুন প্রজন্মের কাছে  ‘তেরি গালিয়ান’, ‘ইননা সোনা’, ‘কাহিনী জো বদল বার্স’, বলিউডের জনপ্রিয় গানগুলো মাতিয়ে দেয়।তবে, সব থেকে আকর্ষণের ছিল ‘তেরা জিকর’ ও “তোর কথা”, যার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিল বাঙ্গালী যুবতীরা। উপস্থিত সমস্ত বাঙালি মেয়েরা তাদের হৃদয় চিৎকার করে তাকে সমর্থন করে। তাকে উপভোগ করতে, দেখতে শিলিগুড়ি, দার্জিলিং এবং সিকিম থেকে মেয়েরা এসে উপস্থিত হয়েছিল কলকাতায়। অনুষ্ঠান করতে এসে অনুরাগী দর্শক ও শ্রোতাদের মধ্যে উত্তেজনা ও উন্মাদনা দেখে বেশ আপ্লুত হয়ে পড়েন দর্শন।তিনি দর্শকাসন থেকে এক যুবতী ভক্তকে মঞ্চে ডেকে তার কালো জ্যাকেট প্রদান করেন। দর্শন বলেন, “আমার মনে হয় সঙ্গীতের জন্য বিশ্বের সেরা শক্তি কলকাতায় রয়েছে। আমি আমার সব ভক্ত ভালোবাসি এবং আমি সবসময় তাদের উপলব্ধি পাবো বলে আশা করি। “তিনি ফুচকা খাওয়া এবং রাতের কলকাতা শহর  উপভোগ করেছেন বলে জানান।তিনি জানান কলকাতায় তার প্রিয় খাবার হল মিষ্টি। তিনি আরও জানান ‘তেরা জিকর’গানটি তিনি তার মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন কারণ তার মা সবসময় তার প্রতি এবং তার প্রতিভা বিশ্বাস রেখেছেন যা আজ তার ভক্তরা বুঝিয়ে দিচ্ছে। প্রচারে হিল নল্টন স্ট্রেটেজিস।

Leave a Reply