রাজনীতি

মোদী যদি গুজরাটে ২৬-২৬ পেয়ে প্রধানমন্ত্রী হতে পারে তবে বাংলা থেকে ৪২-৪২ পেয়ে মমতা ব্যানার্জি কেন প্রধানমন্ত্রী হতে পারবে নাঃ সমরজিত আওয়াজ তুলল গড়িয়া স্টেশন অটো স্ট্যান্ডের লোকসভা নির্বাচনী পথসভায়

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, সোনারপুর উত্তর, ১৩ই মে ২০১৯ ঃ       গড়িয়া স্টেশন সন্ধ্যা বাজার সংলগ্ন নরেন্দ্রপুর অটোস্ট্যান্ডে আজ লোকসভা নির্বাচনী পথসভার আয়োজন করে রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের পুরপিতা তরুণকান্তি মন্ডল। সভায় উপস্থিত ছিলেন তরুণকান্তি মন্ডল সহ ৪ নং ওয়ার্ডের পুরপিতা ও সি আই সি বিভাস মুখার্জি, অরুণ চক্রবর্তী, ২ নং ওয়ার্ডের পুরপিতা অমরেশ সরদার, সমরজিত ব্যানার্জি, অমিতাভ দত্ত, ভুজঙ্গ দাস, দিলীপ নস্কর, জয়ন্ত সেনগুপ্ত, ৪ নং ওয়ার্ডের যুব নেত্রী সমা হালদার সহ অনেকে।সভায় বক্তব্য রাখেন অরুণ চক্রবর্তী, বিভাস মুখার্জি, সমরজিত ব্যানার্জি, অরিন্দম দত্ত। বিভাস মুখার্জি বলেন, এটা বিধানসভা বা পৌরসভা নয় এটা লোকসভা নির্বাচন, আগামী ৫ বছর দেশ কে চালাবে তার নির্বাচন, আগামী ৫ বছর দেশের উন্নয়ন কতটা হবে এটা তার নির্বাচন তাই ১৯শে মে ৪ নং বোতাম টিপে মিমি চক্রবর্তীকে জয়ী করতে হবে শুধুমাত্র মমতা ব্যানার্জির উন্নয়নের হাতকে শক্ত করতে। সমরজিত বলে যদি গুজরাটে মোদী ২৬-২৬ পেয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী হতে পারে তবে বাংলা থেকে ৪২-৪২ পেয়ে কেন মমতা ব্যানার্জি প্রধানমন্ত্রী হতে পারবে না। এটা মাথায় রাখতে হবে দেশ দিনদিন অবনতির দিকে চলে যাচ্ছে। মোদী একের পর এক মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে মানুষকে বোকা বানাচ্ছে। বাংলায় এসে নির্বাচনী প্রচারে বলছে দিদি এই করে নি, দিদি ওই করেনি, দিদি ফোন তলে নি, দিদির অহংকার হয়েছে। আরে মোদী একবারও বলছে না গত ৫ বছরে তিনি কতটা উন্নয়ন করেছেন। বলবেন কি করে তিনি তো ৫ বছরের  মধ্যে বিদেশেই থেকেছেন ৪ বছরের বেশি। যখন বলার কিছু নেই তখন ধর্মকে সামনে নিয়ে আসছে, তখন জাতপাতের কথা বলছে নাহলে পাকিস্থানকে আক্রমণের কথা বলছে। এটা বলতে পারি এই লোকসভা নির্বাচনে যাদবপুর কেন্দ্রে সোনারপুর উত্তর সব থেকে বেশি ভোটের ব্যবধানে জয়ী হবে মিমি চক্রবর্তী কারণ এখানে উন্নয়নের কান্ডারীর নাম ফিরদৌসী বেগম যিনি জাত দেখেন না, সময় দেখেন না, ধর্ম দেখেন না। তিনি একটাই দেখেন উন্নয়ন, মানুষের উন্নয়ন। তাই তার উন্নয়নকে সম্মান জানাতে আমি বলবো না ভোট ভিক্ষা দিন, আমি বলবো আপনাদের ভোট ঋণ হিসাবে দিন আর আগামী ৫ বছর উন্নয়নটা বুঝে নিন। আমার বিশ্বাস বিধায়ক ফিরদৌসী বেগম যে উন্নয়ন করেছে মানুষ তার যোগ্য সময়ে তাদের আশির্বাদ দিতে ভুলবে না। এছাড়া বিজেপিকে কড়া ভাষায় সমালোচনা করে এই মঞ্চ থেকে।

Leave a Reply