You cannot copy content of this page

‘নিউ নরমাল’ পরিস্থিতিতে অনলাইন আর হাইব্রিড মোডে এপিজে কলকাতা সাহিত্য উৎসবের দ্বাদশ সংস্করণ শুরু হল

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ২২শে জানুয়ারি ২০২১ : বিশ্বজুড়ে সাহিত্যেপ্রেমী এবং গন্যমান্য লেখকদের উপস্থিতিতে এপিজে কলকাতা সাহিত্য উৎসবের দ্বাদশ অধ্যায় আজ শুরু হল অনলাইন আর হাইব্রিড মোডে। ডালহৌসির কারেন্সি বিল্ডিং-এ মুষ্টিমেয় কিছু গুণীজনকে নিয়ে আয়োজন করা হলো হাইব্রিড সেশনগুলোর। তিন দিনব্যাপী এই সাহিত্য উৎসবের উদ্বোধন করেন এপিজে সুরেন্দ্র গ্রুপের পরিচালক, প্রীতি পল এবং এপিজে কলকাতা সাহিত্য উৎসব এবং অক্সফোর্ড বুকস্টোরের পরিচালক, ময়না ভগৎ।
সাহিত্য উৎসবের দ্বাদশ সংস্করণে, এপিজে সুরেন্দ্র গ্রুপের পরিচালক, প্রীতি পল বলেন, “এপিজে কলকাতা সাহিত্য উৎসবের দ্বাদশ সংস্করনে আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি হাইব্রিড/ভার্চুয়াল মাধ্যমের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে ২৪-টি টাইমজোন জুড়ে ছড়িয়ে থাকা প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণ সুনিশ্চিত করার। এবছর ডিজিটাল মাধ্যমের বাধা অতিক্রম করে আমরা আমাদের মূল উদ্যোগগুলিকে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছি!” 

এপিজে কলকাতা সাহিত্য উৎসব এবং অক্সফোর্ড বুকস্টোরের পরিচালক, ময়না ভগৎ বলেন, “আমরা এমন এক সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি যখন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাই কাম্য, তখন সাহিত্যিক সম্প্রদায়গুলিকে নিয়ে এই উৎসব সাফল্যমন্ডিত করা বেশি জরুরি হয়ে দাঁড়ায়। আমরা আশা করি সকলে কলকাতা সাহিত্য উৎসবের এই হাইব্রিড দ্বাদশ সংস্করণটি উপভোগ করবেন, যেখানে সমকালীন বিষয়, সাহিত্যের হাইলাইটস, শিল্প, সিনেমা এবং আরও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার উপস্থাপনা করা হবে।  

ডিএজি ঘরে বাইরে মিউজিয়ামের ডেপুটি ডিরেক্টর, সুমনা চক্রবর্তী বলেন, “একেএলএফ শুরু থেকেই আমাদের শহরের সাংস্কৃতিক উদযাপনগুলির একটি বিশেষ বিষয় এবং ডিএজি ঘরে বাইরে মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ এবছর খুবই আপ্লুত একেএলএফ-এর এখানে উপস্থাপনা করতে পেরে। আমরা বিগত বছরের চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও মানুষকে চারুকলার সাথে সংযুক্ত করার প্রতিশ্রুতিতে একেএলএফ-কে সফল করার চেষ্টা করছি এবং আশা করি যে এই কঠিন সময় শিল্প, সাহিত্য, সিনেমা ইত্যাদির মাধ্যমে আমাদের শ্রোতাদের/ দর্শক-দের আপ্লুত করা সম্ভব হবে।”
কলকাতা সাহিত্য উৎসব এবার হাইব্রিড এবং ডিজিটাল মাধ্যমে হবে, যেখানে উপস্থিত থাকবেন সাহিত্য, বিনোদন, ব্যবসা ও ক্রীড়া জগতের বিভিন্ন গন্যমান্য ব্যক্তিত্ব যেমন শোভা দে, পরমেশ শাহানী, পারো আনন্দ, সোনু সুদ, লিসা রায়, মনোজ বাজপেয়ী, বিশ্বনাথন আনন্দ, তমাল বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিজিৎ ভাদুড়ি ইত্যাদি।
এই সাহিত্য উৎসবে বিশ্বজুড়ে চল্লিশেরও বেশি বক্তাদের উপস্থিতি থাকবে এবং লক্ষাধিক বইপ্রেমীদের স্বাগত জানানো হবে। উল্লেখযোগ্য অধিবেশনগুলির মধ্যে রয়েছে “গোয়িং ভাইরাল: দ্য  ডন অফ দ্য প্রিজি উইনিং বেস্ট সেলার্স, পরমশাহানী, সোপান দেব, সমিত বসু এবং অঞ্জুম কাট্যাল সহ পুরষ্কারপ্রাপ্ত লেখকরা; লোলিটা’স নাইট আউট: রাইটিং ফিমেল ডিসাইয়ার্স: কিশোর দেসাই, শোভা দে, করুণা এজারা পরীখ এবং ঐন্দ্রিলা দত্ত; ব্রেকিং নিউজ টু হুইসেলব্লোয়িং: স্পিকিং ট্রুথ তো পাওয়ার – ক্যাথরিন ইবান, রাশিদ কিদওয়াই, সুতপা পল, জহর সরকার এবং ঐন্দ্রিলা দত্ত; ববুক্স এন্ড সিনেমা: ফ্রম ওয়ার্ড  টু স্ক্রিন-  দীপা মেহতা, মনোজ বাজপেয়ী, জুহি চতুর্বেদী এবং অসীম ছাবড়া প্রমুখের সঙ্গে; চেকমেট: বিশ্বনাথন আনন্দ এবং বোরিয়া মজুমদারের কথোপকথন।
সমস্ত অধিবেশনগুলি বিশ্বব্যাপী দর্শকদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য এপিজে কলকাতা সাহিত্য উৎসব ফেসবুক এবং ইউটিউব  হ্যান্ডলগুলির মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারিত হতে চলেছে। বিশেষ সেশনগুলির পাশাপাশি, উৎসবের দ্বাদশ সংস্করণে দুটি উল্লেখযোগ্য সাহিত্য পুরষ্কার দেওয়া হবে, যথাক্রমে  রোমা রোলা পুরস্কারের বিজয়ীদের এবং অক্সফোর্ড বুকস্টোর বুক কভার প্রাইজের লংলিস্ট ঘোষণার মাধ্যমে।
ওয়েবসাইট: www.AKLF.IN । টুইটার: TheAKLF। ফেসবুক: TheAKLF। ইনস্টাগ্রাম: @theaklf । ইউটিউব: The AKLF। #AKLF2021। প্রচারে ক্যানডিড কমিউনিকেশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *