You cannot copy content of this page

সাহসিকতার সাথে এ খানের নির্দেশনায় কমলিকা মহিলাদের স্বাধীনতার বার্তা দিল “মাই ডার্লিং”

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ২৮শে ডিসেম্বর ২০২০ : মোন বিক্রমের অফিস ট্যুরে স্বামী (বিক্রম)  কে নিয়ে কলকাতায় আসেন। কলকাতা সফরে, মোন রনের সাথে সাক্ষাত করে এবং মোন তার বিবাহ জীবনের সঙ্কটের কারণে রনের প্রতি আকৃষ্ট হন। মনের  বন্ধু শ্রীলা তাকে রন ও মনের সাথে সম্পর্ক স্থাপন করতে প্রভাবিত করে, বহন করে। বিক্রম মোন ও রনের সম্পর্কের কথা জানতে পারে এবং তাদের বিবাহ জীবনের সঙ্কট সেতু দেয়। গল্পটি এই চরিত্রের চারদিকে বিকশিত হয় যতক্ষণ না মোন এবং বিক্রম তাদের নতুন সংজ্ঞাযুক্ত বিবাহ জীবন নিয়ে দিল্লিতে ফিরে না যায়।

এব্যাপারে ছবির নায়িকা কমলিকা চন্দ আমাদের জানান, প্রতিটা মহিলার একটা শারীরিক চাহিদা আছে, এটা থাকাটা স্বাভাবিক। আর সেই চাহিদা সমান ভাবে পুরুষদের বুঝে সহযোগিতা করা উচিত। কিন্তু বহু ক্ষেত্রে পুরুষরা বাড়ির মহিলাদের সেই চাহিদা পূরণ করতে পারেন না। কিন্তু পুরুষরা তাদের চাহিদা যেকোন প্রকারে পূরণ করে, মহিলারা তাদের আকাঙ্খা বা অপূর্ণ চাহিদাকে ত্যাগ স্বীকার করে সংসার করে। এই ছবিতে সেরকমই এক মহিলার চরিত্রে আমি অভিনয় করছি যেখানে তার চাহিদা পূরণ না হওয়ায় সে অন্য পুরুষের সাথে তার শারীরিক চাহিদা পূরণ করতে চায়। আমি বলবো আজকের দিনে এই ভাবনাটা খুবই স্বাভাবিক।এরকম পরিস্থিতিতে পুরুষ সমাজকে উচিত শিক্ষা দিতে নারীদের এই পথে বিদ্রোহ করা প্রয়োজন তবেই পুরুষরা সংসারে স্ত্রীর গুরুত্ব উপলব্ধি করবে।

এই হিন্দি ছবি “মাই ডার্লিং” জানুয়ারি মাসে নিউফ্লিক্স ওটিটি প্ল্যাটফর্মে দেখা যাবে। বায়োস্কোপ ফিল্মের উপস্থাপনায় ছবি পরিচালনা করেছেন এ খান এবং ছবিতে অভিনয় করেছেন কমলিকা চন্দ, অভিষেক রায়, দীপ কুমার সিং, প্রতীক, অনু সিং, জয়দীপ দাশ সহ অনেকে।আগামী দশই জানুয়ারি এই ছবিটির শুভমুক্তি পাচ্ছে।প্রচারে : রিদ্যম এন্টারটেন্মেন্ট। ছবি : রাজীব মুখার্জি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *