You cannot copy content of this page

পুজোর মেজাজে ঠাকুর বাড়ির সাজ পোশাকে সাজলো নীলয়ের সাথে

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ : ফ্যাশন ডিজাইনার নীলয় সেনগুপ্ত ঠাকুর বাড়ির সাজ পোশাক নিয়ে ছিলেন বেশ উৎসাহিত আর তাই এবার পুজোয় তাঁর সাথে “ঠাকুর বাড়ির সাজ পোশাকে” সেজে উঠল গোটা টলিউড। সেই সাবেকি পোশাকে লেক ক্লাবের মঞ্চে দেখা গেল অভিনেতা দেবশঙ্কর হালদার, প্রখ্যাত নৃত্য শিল্পী সুদর্শন চক্রবর্তী, পৌরমাতা জুই বিশ্বাস থেকে অভিনেত্রী দেবলীনা কুমার, অভিনেত্রী সায়ন্তনী গুহ ঠাকুরতা, অভিনেত্রী সুস্মিতা , অভিনেতা রিজওয়ান, নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়, বাচিক শিল্পী সুজয় প্রসাদ চ্যাটার্জি সহ অনেকে।নীলয় এবার তাঁর পুজো কালেকশনে নিয়ে এসেছে সেই পিছনে ফেলে আসা ঠাকুর বাড়ির সাবেকি পোশাকের সাথে ছিল আজকের নতুনের ছোঁয়া যা সম্পূর্ণ খাদি দিয়ে করা এবং ছিল বেনারসীতে জরির কাজ, ক্রোশিয়ার কাজ,

এব্রায়োডারি ও কাঁথার কাজ যা পোশাকে ফুটিয়ে তুলেছিল দেবলীনা, সায়ন্তনী ও সুস্মিতাকে, করে তুলেছিল অনন্যা।পোশাকের সাথে বেশ মানিয়েছিল সায়ন্তনী ও দেবলীনাকে। সামনে পুজো আর এরকম একটা পোশাক পড়লে কারও নজর ফেলতে যে পারবে না তা বেশ বোঝা যাচ্ছিল। নীলয়ের এই কালেকশনের দাম যে খুব একটা তা কিন্তু নয় মাত্র ৩০০০ টাকা থেকে ৮০০০ টাকা। একসময় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের পিতা মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর পরিবারের মহিলাদের জন্য নিজেই পোশাকের ডিজাইন তৈরি করতেন যার মধ্যে পাশ্চাত্য ও মুসলিম ঘরানার ছোঁয়া থাকতো। এরপর পিতা মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুরের অনুপ্রেরণায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর পোশাকের মধ্যে জাপানি স্টাইলের ছোঁয়া

দিয়েছেন বিষেশত জাপানি কিমোনোসের। তিনি বিভিন্ন দেশে গিয়ে সেখানকার পোশাকের আদলের সাথে ভারতীয় আদলের মিশেল ঘটিয়েছেন। শাড়িতে ড্রেপ ও প্লেটসের প্রচলন করেন কবিগুরু তাঁর ঠাকুরবাড়ির মহিলাদের পোশাকের মধ্যে।এমনকি কবিগুরুর দাদা জ্যোতিন্দ্রনাথ ঠাকুর এধরনের পোশাক নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষাও করেন। এব্যাপারে নীলয় জানান, আমরা পুরানোদিনের ফেলে আসা পোশাকগুলো প্রায় ভুলতে বসেছি, সেই সব পোশাক আজ বিলুপ্তির পথে। কিন্তু সেদিনের সেই পোশাকের মধ্যে ছিল আভিজাত্য, মাধুর্য। সেদিনের পোশাক সারা দুনিয়ার কাছে তুলে ধরতো আমাদের সভ্যতাকে।

নীলয় স্কটিশ চার্চ কলেজ থেকে স্নাতক হওয়ার পরেই ওড়িশি নৃত্যের প্রশিক্ষণ নেয় গুরু শর্মিলা বিশ্বাসের কাছে। এরপর নীলয় বিভিন্ন বিখ্যাত সব নির্দেশকের ছবিতে কস্টিউম ডিজাইন করেছে। আগামী ১৯শে অক্টোবর নীলয় তাঁর নিজের কোরিওগ্রাফিতে শো করতে চলেছে ইংল্যান্ডের ম্যাঞ্চেস্টারে, থাকছে সেই ঠাকুর বাড়ির সাজ পোশাকে নৃত্যকুঞ্জের শিল্পীরা এবং মিস ইংল্যান্ড ২০১৯ ডঃ ভাষা মুখার্জি। প্রচারে : ক্যানডিড কমিউনিকেশন। ছবি : বিশ্বজিত সাহা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *