You cannot copy content of this page

২৫ তম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে এসে স্পষ্ট বাংলায় রাখী জানালেন এমন একটা সুন্দর আয়োজন দেখে বাংলার মেয়ে হিসাবে গর্ব বোধ হচ্ছে

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ৯ই নভেম্বর ২০১৯ : ৮ নভেম্বর নেতাজি ইন্দোর স্টেডিয়াম থেকে শুরু হল কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব, যার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয় নন্দনে, গত শুক্রবার। দেখতে দেখতে ২৫ বছরে পা দিল কলকাতার অতি আপন এই উৎসব। এবারে উৎসবের ফোকাস কান্ট্রি জার্মানি।

নেতাজী ইনডোর স্টেডিয়ামে বর্ণাঢ্য উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত উৎসব কমিটির চেয়ারম্যান রাজ চক্রবর্তী, একাধিক নেতা-মন্ত্রী, টলিউডের প্রায় সমস্ত শীর্ষ অভিনেতা-অভিনেত্রী। বিশিষ্ট অতিথি তালিকায় রয়েছেন শাহরুখ খান, বর্ষীয়ান অভিনেত্রী রাখি গুলজার, দুই প্রখ্যাত ভারতীয় পরিচালক মহেশ ভাট ও গৌতম ঘোষ, হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অ্যান্ডি ম্যাকডাওয়েল এবং জার্মান পরিচালক ভলকার শ্লনডর্ফ।প্রাথমিক অতিথি তালিকায় নাম ছিল অমিতাভ এবং জয়া বচ্চনের। এমনকি আমন্ত্রণ পত্রেও নাম ছাপানো হয়ে যায় তাঁদের। কিন্তু তারপর জানা যায়, শারীরিক অসুস্থতার কারণে আসতে পারবেন না অমিতাভ। দীর্ঘদিন ধরেই কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নিয়মিত দেখা গিয়েছে ‘বিগ বি’কে।উপস্থিত ছিলেন রাজ চক্রবর্তী, মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন, আবীর চ্যাটার্জি, শুভশ্রী গাঙ্গুলি। চলচ্চিত্র উৎসবের সূচনা হবে ‘গুপি গাইন বাঘা বাইন’ ছবি দিয়ে।

বাংলা সিনেমার বৈশিষ্ট্য নিয়ে কথা বলতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গলায় উঠে এলো ঋতুপর্ণ ঘোষ এবং নবনীতা দেব সেনের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা। বাংলা যে বলিউডকে অনেক কিছু দিয়েছে, সেকথাও স্মরণ করিয়ে দিলেন তিনি। সঙ্গে নাম করলেন মৃণাল, ঋত্বিক, উত্তম কুমার, সত্যজিতেরও। শাহরুখ খান এবং রাখী গুলজারের প্রতি তাঁর নিবেদন, দুজনেই বারবার ফিরে আসুন। অনুপস্থিত দুই প্রবাদপ্রতিম অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন এবং সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের কথাও উল্লেখ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। জার্মান পরিচালক ভলকার শ্লনডর্ফের নাম বলতে গিয়ে সামান্য বেগ পেলেও, স্বভাবসিদ্ধ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই ভাষণ শেষ করলেন মমতা।

স্পষ্ট, ঝরঝরে বাংলায় নিজের বক্তব্য রাখলেন রাখী গুলজার।বক্তব্য রাখতে তাঁকে সঙ্গে করে নিয়ে এলেন ‘বাজিগর’ ছবিতে তাঁর সন্তান শাহরুখ খান। রাখী বললেন, “আমি বাংলার মেয়ে। আমার ধমনীতে বাংলা।” এরপর শাহরুখকে দিয়ে পাখি পড়ার মতো করে বলালেন, “ও আমার দেশের মাটি, তোমার ‘পরে ঠেকাই মাথা”। মমতার উদ্দেশে বললেন, “আমি অনেক ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল দেখেছি। এত সুন্দর আয়োজন, সবাইকে খুশি রেখে, খুব সহজ কাজ নয়।” রাখীকে “পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দরী নারী” বলে বর্ণনা করলেন শাহরুখ।

বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাশে নিয়ে চলচ্চিত্র উৎসবে উপস্থিত ছিলেন শোভন চ্যাটার্জি। অব্যাহত রইল কলকাতার প্রাক্তন নগরপাল তথা বর্তমানে বিজেপির সদস্য শোভন চট্টোপাধ্যায়ের তৃনমূল কংগ্রেসে ফেরা নিয়ে জল্পনা।অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় এবং যিশু সেনগুপ্ত।

এবার ১৭টি সিনেমা হলে দেখানো হবে ছবি। এগুলি হলো – নন্দন এক, নন্দন দুই, নন্দন তিন, রবীন্দ্র সদন, শিশির মঞ্চ, বিজলি, প্রিয়া, মিনার, নবীনা, অজন্তা, পিভিআর অবনি, আইনক্স সিটি সেন্টার ওয়ান, রবীন্দ্র ওকাকুরা ভবন, নজরুল তীর্থ, নিউ এম্পায়ার, নেতাজী ইনডোর স্টেডিয়াম এবং চলচ্চিত্র শতবর্ষ ভবন। কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবকে ঘিরে স্বাভাবিক ভাবেই সেজে উঠছে শহর কলকাতা। ২৫তম বর্ষ বলে কথা, কোনও খামতি রাখতে চান না কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যেই চেয়ারম্যান পদের জন্য রাজ চক্রবর্তীর নাম ঘোষণা হওয়ায় বহু জলঘোলা হয়েছে। তবে সে সবের তোয়াক্কা না করেই উৎসবের চমক আনার সমস্ত প্রচেষ্টা করেছেন রাজ।

এবারের কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে মোট ২১৪টি ফিচার ছবি দেখাানো হবে। যার মধ্যে থাকবে ১৫২টি স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি ও তথ্যচিত্র। ৭৬টি দেশের ছবি দেখানো হতে চলেছে উৎসবে। যার মধ্যে ভুটান, আফগানিস্তান, সিরিয়া, গুয়াতেমালা, উরুগুয়ে, লেবাননের মতো দেশের ছবি রয়েছে।ছবি : চুনী পাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *