You cannot copy content of this page

৪ গল্পের একটাই যোগ, প্রেম, রহস্য, নাটকের মাঝেও মানসিক অবশাদ নিয়ে আকাশের “কলকাতা টেলস”

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ১৮ই আগস্ট ২০১৯ : মারগদারশাক এন্টারটেনমেন্ট প্রযোজিত ও নব্য যুব নির্দেশক আকাশ সরকার নির্দেশনায় শুরু হতে যাচ্ছে বাংলা ছবি “কলকাতা টেলস”। একটা ছবিতে চারটি গল্প আছে কিন্তু সব গল্পের সাথেই যোগ আছে একটা সেটা হল চারজনই মানিসিক রোগী। ছবিতে সমাজের জন্য একটা সামাজিক বার্তা আছে। ছবিতে এক মনরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ চান্দ্রেয়ি মুখার্জি তাঁর চিকিৎসা জীবনের চারজন চরিত্রের গল্প দর্শকদের জন্য শনাচ্ছেন আর তাঁর সাথে সেই গল্প ফুটে উঠছে পর্দায়। তেমনই একজন রোগী প্রবীণ সেনগুপ্ত, যিনি হতাশার কারণে জীবনের সব আশা ছেড়ে দিয়েছেন। প্রবীণ সেনগুপ্ত একজন ড্রাগিস্ট আর তাই তাঁর চিকিৎসার জন্য ডাঃ চান্দ্রেয়ি রোগীর আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনতে চারটি রোগীর কথা শোনাচ্ছেন যারা এক সময় তাঁর কাছে চিকিৎসা করে গেছেন এবং আজ তারা ভাল আছেন।ছবিতে একই সাথে যেমন আছে রোমান্স, তেমনিই আছে

নাটক আর আছে থ্রিলার। এমনই একটা গল্পের মুখ্য ভুমিকায় রয়েছে অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী ও মুম্বাই অভিনয় জগৎ থেকে আসা বাংলায় প্রথম ছবি করতে অভিনন্দন দত্ত। একটি ছেলে বহুদিন ধরে এক যুবতীকে ভালোবাসে কিন্তু মেয়ের বাবার ইচ্ছা মেয়েকে এক সরকারি চাকুরীজীবির সাথে বিয়ে দেবেন। এই কারণে বর্তমান ছেলেটির সাথে সম্পর্কের কথা জানলেও এই বিয়েতে রাজি নয় বাবা। মেয়েটি বাবাকে অনেক বঝানর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় অবশেষে বাধ্য হয় বাবার পছন্দের ছেলেকে বিয়ে করতে। নিজের মনের মানুষের সাথে বিয়ে না করতে পারায় হতাশায় ভুগতে শুরু করে ছেলেটি। প্রতি মুহুর্তে তাঁর মনে হতে থাকে শুধুমাত্র সরকারি চাকরি করে না বলে তার প্রমিকা ও তার বাবা বিয়েতে রাজি হল না। এমনটা ভাবতে ভাবতে সরকারি

চাকরির চেষ্টা করতে থাকে। শেষমেশ একটা সরকারি চাকরি পেল। একটা সরকারি ব্যাঙ্কে তার চাকরি হয় কিন্তু তারপর যে পরিনতি হয় সেটা আরও মারাত্মক। আজকের যুব সমাজের কাছে এটা একটা দুরন্ত শিক্ষার বিষয় হয়ে উঠতে পারে। কিভাবে আজকের যুব সমাজ প্রতারণার জালে জড়িয়ে বিপদের মুখে পড়ছে। ছবিতে অভিনয় করেছেন অভিনন্দন দত্ত, সুদীপ্তা চক্রবর্তী, মুসকান খান, সোহিনী বসু, অভিরূপ ও অনির্বান। প্রচারে : কিউভাইস। প্রতিবেদন ভাল লাগলে আপনি আপনার মূল্যবান মন্তব্য দিয়ে জানাবেন নীচের বক্সটিতে। ভাল না লাগলেও তা জানাতে ভুল্বেন না। আপনাদের মন্তব্য আমাদের আগামীদিনের পথ চলার শক্তি এবং একইভাবে যাদের নিয়ে প্রতিবেদন তাদেরও ভাবনার শক্তি হয়ে উঠবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *