You cannot copy content of this page

সাংসদ মিমির উদ্যোগে সোনারপুরে নরেন্দ্রপুর থানায় চালু হল সিসিটিভি কন্ট্রোল রুম পরিষেবা

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, সোনারপুর, ২৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৯ : বর্তমানে সোনারপুর অঞ্চল খুবই ব্যস্ত ও দ্রুতগামী অঞ্চল হয়ে উঠেছে কারণ বলতে গেলে সোনারপুর দক্ষিণ ২৪ পরগণার জেলার হয়ে উঠেছে প্রধান ফটক।ইতিমধ্যে বাইপাস হয়ে গেছে এবং তার জন্য দক্ষিণ ২৪ পরগণার সাথে ভৌগলিক দুরত্ব একই থাকলেও সময়ের দুরত্ব কমে গেছে অনেক।এরফলে সোনারপুর এলাকায় বহু ধর্মের মানুষ যেমন প্রবেশ করছে তেমনিই বহু পেশার মানুষের যাতায়াত বেড়েছে এবং এই কারণে এখানে প্রায়ই ঘতে চলেছে দুর্ঘটনা থেকে বেশ কিছু অসামাজিক কাজ। আজ সোনারপুর উত্তর বিধানসভার নরেন্দ্রপুর থানায় সোনারপুর এলাকার সিসিটিভি-র কন্ট্রোল রুমের সূচনা হল। এরফলে পুলিশের কড়া নজরদারি থাকবে জনবহুল এলাকাগুলোতে। আজ সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর উদ্যোগে এই পরিষেবার

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়ে গেল। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ মিমি চক্রবর্তী সহ সোনারপুর উত্তর বিধানসভার বিধায়ক ফেরদৌসী বেগম, ও রাজপুর সোনারপুর পুরসভার পৌরপ্রধান পরিষদ নজরুল আলী মন্ডল এবং নরেন্দ্রপুর থানা আধিকারিক সুখময় চক্রবর্তী, সোনারপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি প্রবীর সরকার সহ অনেকে।সোনারপুর উত্তর বিধানসভার সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার মোড় গুলিকে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আনা হলো, যাতে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা ব্যবস্থা অনেকটা সুনিশ্চিত করা যায়, এটি একটি অভূতপূর্ব পূর্ব উদ্দ্যোগ, যা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় সম্ভব হয়েছে। সিসিটিভি পরিষেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন মাননীয়া মিমি চক্রবর্তী (সাংসদ, যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র ) ও বারুইপুর জেলাপুলিস সুপার রাশিদ মুনির খান, এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সোনারপুর উত্তর বিধানসভার বিধায়ক ফিরদৌসী বেগম, ডাঃ পল্লব দাস (পৌর প্রধান, রাজপুর সোনারপুর পৌরসভা ), সোনারপুর দক্ষিণের বিধায়ক জীবন মুখোপাধ্যায়, ও আরও অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।একই অনুষ্ঠানে সোনারপুরের পুজো কমিটিগুলোকে সরকারি অনুদানের ২৫০০০ টাকার চেক তুলে দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *