You cannot copy content of this page

দেবাশিসের উদ্যোগে রানিয়ায় ১৭টা ক্লাবকে একত্র করে করোনা দুর্জোগের মোকাবিলা করতে ২০০০ মানুষকে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেওয়া হল

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, সোনারপুর, ১০ই এপ্রিল ২০২০ : মানুষকে একসাথে লড়াই করতে হবে এমন একটা পরিস্থিতিতে। এই সময় কোন রাজনীতি নয়, কোন হিংসা নয়, কোন বিভেদ নয়। করোনার থাবা যখন মানুষকে দিশাহারা করে দিয়েছে, মানুষ খাদ্যাভাবে ভুগছে, আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে পড়েছে তখন রাজপুর সোনারপুরের ৩৫ নং ওয়ার্ডের রানিয়া ক্লাব সমন্বয় কমিটির সভাপতি দেবাশিস দাশ উদ্যোগী হয়ে এলাকার ১৭টা ক্লাবের দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ালেন।এরকম একটা পরিস্থিতিতে এই ওয়ার্ডের পৌরপিতা গৌরহরি দাসের কোন উদ্যোগ না দেখা যাওয়ায় মানুষ খুবই হতাশ।

এদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার সি আই সি নজরুল আলি মণ্ডল।দেবাশিস দাশ, বাবলু ঘোষ ও ওয়ার্ডের যুব নেতা সুদীপ্ত দাসের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এদিন প্রায় ২০০০ মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হয় চাল, ডাল, আলু। নজরুল আলি মণ্ডল এই অনুষ্ঠানে মানুষকে বারবার করে সচেতন করেন, তিনি মানুষকে বাড়ির বাইরে না থাকার অনুরোধ করেন, সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে বলেন।

তিনি এমনও জানান কেন্দ্র সরকারের তালিকায় দঃ ২৪ পরগণা জেলাকে করোনা সংক্রমনে “হটস্পট” জেলা হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর থেকে পরিষ্কার কি মারাত্মক পরিস্থিতির সম্ভবনার মধ্যে আমরা লড়াই করছি।এর থেকে মুক্তি পেতে আমাদের সচেতন হতে হবে এবং নিরাপদে থাকতে হবে অন্যথা ভয়াবহ পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হবে। এরসাথে রয়েছে হাওড়া, কলকাতা সহ আরও ৪টি জেলা। তিনি মানুষকে অনুরোধ করে বলেন আমরা চাই না কাউকে হারাতে, কোন পরিবারকে ক্ষতিগ্রস্থ হতে। আমরা চাই সকলকে নিরাপদে রাখতে।তাই আমরা আপনাদের দুর্দশার কথা মাথায় রেখে এই খাদ্য সামগ্রী তুলে দিতে এসেছি। এটা কোন দান নয়, কোন ভিক্ষা নয়, এটা শুধুমাত্র আপনাদের সাহায্য করার জন্য।এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন ক্লাবের কর্তাদের মধ্যে বাবলু ঘোষ, রবি কামাত, বাপ্পা ঘোষ, অভিজিৎ বৈরাগী, রঘুরীর সিং, বিনোদ সিং, বাবু সাহা, ভোলা রায়, রবিন হালদার সহ অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *