You cannot copy content of this page

মানুষের ভুল ধারণা ভাঙতে হবে, চবনপ্রাস সারা বছর সেবন করা যায় : ডাঃ পরমেশ্বর আরোরা

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ২৫শে আগস্ট ২০১৯ : চবনপ্রাসের নাম কে না জানে, আর ডাবরের চবনপ্রাস এতটাই জনপ্রিয় সকলের কাছে যে দোকানে গিয়ে চবনপ্রাসের কথা বলতে ডাবরের চবনপ্রাসের নামটাই পছন্দের তালিকায় আগে আসে। সাম্প্রতিক প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনে ডাবর চবনপ্রাসের প্রচারে আসেন ডাঃ পরমেশ্বর আরোরা। অনুষ্ঠানের মুল উদ্দেশ্য ছিল চবনপ্রাসের বিভিন্ন গুনের সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করা।তিনি জানান, ডাবরের চবনপ্রাসে চল্লিশটি ভেষজ জরিবুটি দিয়ে তৈরি যা দিয়ে যেকোন বয়সের প্রতিরোধ শক্তি, শারীরিক অক্ষমতা দুরীকরণ, স্মৃতিশক্তি, ধাতুশক্তি, ডায়াবেটিস, প্রস্রাবের সমস্যা সহ বহু রোগের প্রতিকার করে। ডাঃ পরমেশ্বর আরোরার মতে, দীর্ঘ কয়েক দশক ধরে ব্যবহৃত চবনপ্রাস একটি সুপরিচিত আয়ুর্বেদিক ব্র্যান্ড যা বিভিন্ন রোগ সংক্রমণের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দেয়। এছাড়াও তার বিভিন্ন গুনগত মানের সম্পর্কে আলোচনা করেন। সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রাজ কুমার ও দীনেশ কুমার। তাঁরা বলেন, আয়ুর্বেদের সমৃদ্ধ ঐতিহ্য এবং প্রকৃতির

গভীর জ্ঞান সহ তৈরি এই ডাবর চবনপ্রাস। এছাড়াও এটি চরন মুনির আয়ুর্বেদ শাস্ত্র অধ্যায়ন করে তৈরি করা হয়েছে।এতে আমলা সহ এমন কিছু উপাদান আছে যা রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করবে। ডাঃ আরোরা আরও বলেন আমাদের পৃথিবীতে তিনটে মূল বিষয় আছে ১) পরিবেশ, ২) মানুষ ও ৩) রোগ। পরিবেশের জন্য মানুষের রোগ তৈরি হয়। আর মানুষের সাথে রোগের প্রতিমুহুর্তে চলে লড়াই। রোগ সর্বদাই চায় মানুষের শরীরে প্রবেশ করে তাঁকে অচল করতে আর মানুষ সেই রোগের সাথে নিজের প্রতিরোধ ক্ষমতা দিয়ে লড়াই চালায়। আমরা নিজেদের সুস্থ রাখতে ওষুধের দোকানে গিয়ে ভিটামিন সিরাপ বা ট্যাবলেট কিনে থাকি কিন্তু আমাদের আশেপাশে বাজারে পাওয়া যায় আমলকি কিনে খাই না। আমরা স্বাস্থ্য সচেতন তাই রুটিন চেক আপ করে থাকি কিন্তু প্রাকৃতিক পদার্থ খেতে চাই না। চবনপ্রাস সেই সবের একটাই উত্তর। আমলকিকে বলা হয় দ্বিতীয় মা। প্রথম মা যদি জন্ম দেয় তবে আমলকি শরীরকে সুস্থ্য রাখতে সাহায্য করে, শক্তি বৃদ্ধি করে।চবনপ্রাস ছাড়াও বাজারে চবনপ্রকাশ নামে আরো একটি প্রোডাক রয়েছে যা ডায়াবেটিস রোগীদের কথা মাথায় রেখে তৈরি। আমাদের সমাজে অনেক ভুল ধারণা আছে যার মধ্যে একটা হল চবনপ্রাস শীত কালে সেবন করতে হয়। কিন্তু এটা ভুল ধারণা, চবনপ্রাসে সেসব ভেষজ আছে তা শরীরকে ঠাণ্ডা করে, কখনই গরম করে না। তাই চবনপ্রাস সারা বছর সেবন করা যায়। আরেকটা ভুল ধারণ হল শর্দি বা কাশি হলেই চবনপ্রাস খাওয়া প্রয়োজন কিন্তু সেটাও ভুল ধারণা, চবনপ্রাস নিয়েমিত খেলে শরীরের প্রতিরোধ শক্তি বৃদ্ধি করে। আর একটা ভুল ধারণা হল চবনপ্রাস দুধ বা মধু দিয়ে খেতে হয়। এটাও ভুল ধারণা কারণ এতে মধু যেমন আছে তেমনই ঘি আছে। রোজ রাতে খাওয়া দাওয়া করে এক চামচ করে চবনপ্রাস সেবন শরীরের পক্ষে ভাল।প্রতিদিন এক বছর সেবন করলে নিজেই বুঝতে পারবেন পরিবর্তন কোথায় হয়েছে এবং কতটা হয়েছে। প্রচারে : ভার্চুয়াল কমিউনিকেশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *