You cannot copy content of this page

রাজপুর সোনারপুরের ১ নং ওয়ার্ডের পৌরমাতা পাপিয়ার দুঃস্থদের জন্য সাহায্যের আবেদনে সাড়া দিলেন সাংসদ মিমি চক্রবর্তী

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, সোনারপুর, ২৪শে এপ্রিল ২০২০ : যতদিন এগোচ্ছে তত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যার সাথে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা।শুধু ভারত নয় গোটা পৃথিবী এই করোনা জ্বরে নাজেহাল হয়ে যাচ্ছে। এই মুহুর্তে গোটা বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৭,২৫,৩৯১ এবং মৃতের সংখ্যা ১,৯১,০৬৬। আমেরিকায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮,৮৬,৭০৯ এবং মৃতের সংখ্যা ৫০,২৪৩, ইতালিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮৯,৯৭৩ এবং মৃতের সংখ্যা ২৫,৫৪৯, স্পেনে আক্রান্ত ২,১৩,০২৪ এবং মৃত ২২,১৫৭, ফ্রান্সে আক্রান্ত ১,৫৮,১৮৩, ইংল্যান্ড ১,৩৮, ০৭৮ এবং মৃতের সংখ্যা ১৮,৭৩৮ আর সেখানে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ২৩,০৭৭ এবং মৃত্যু হয়েছে ৭২১ জনের।গোটা ভারতে এই পরিস্থিতিতে লকডাউন হয়ে রয়েছে, পরিবহণ থেকে দোকান এবং অফিস সবই প্রায় বন্ধ, অনেক মানুষ ইতিমধ্যে রোজগার হারিয়েছে এবং প্রায় সব বাড়িতে দেখা দিয়েছে খাদ্যাভাব। ভারতে শুরু হয়েছে করোনা আক্রান্ত বনাম মৃত্যুর এক প্রতিযোগিতা। মহারাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ৬৪৩০ আর মৃত্যু ২৮৩, দিল্লিকে পিছিয়ে দিয়ে এগিয়ে গেছে গুজরাত যেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২৬২৪ এবং মৃত্যু ১১২ আর দিল্লিতে আক্রান্ত ২৩৭৬ আর মৃত্যু ৫০। রাজস্থানও পিছনেই আছে যেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ১৯৬৪, মধ্যপ্রদেশে আক্রান্ত ১৬৯৯, তামিলনাডু ১৬৮৩, উত্তরপ্রদেশ ১৫১০ আর পশ্চিমবঙ্গ ৫১৪ জন আক্রান্ত।

এই অবস্থায় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নির্দেশে এই রাজ্যে তিনটে জোনে ভাগ করা হয়েছে যার নাম দেওয়া হয়েছে রেড জোন, অরেঞ্জ জোন এবং গ্রীন জোন। দঃ ২৪ পরগণা জেলা এই অরেঞ্জ জোনে আছে যার মধ্যে সোনারপুরের রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার বেশ কিছু ওয়ার্ড কলকাতা কর্পোরেশনের লাগোয়া হওয়ার কারণে রেড জোন না কিন্তু অরেঞ্জ জোনের উপরে স্পর্শকাতর এলাকা হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে। বর্তমানে এই ওয়ার্ড কলকাতা কর্পোরেশনের ১০৯ নং ওয়ার্ড লাগোয়া হওয়ার কারণে ভালনারেবেল এলাকা চিহ্নিত করে গোটা ১ নং ওয়ার্ড সীল করে দেওয়া হয়েছে। ওয়ার্ডের দোকান খোলা নিয়েও দেওয়া হয়েছে কড়া নির্দেশিকা। এলাকায় বহু অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে ওয়ার্ডের পৌরমাতা পাপিয়া হালদার যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ মিমি চক্রবর্তীকে অনুরোধ করেন খাদ্য সামগ্রী দিয়ে সাহায্য করতে। পাপিয়ার আবেদনে সাড়া দিয়ে মিমি চক্রবর্তীর অফিস থেকে খাদ্য সামগ্রী পাঠান এবং পাপিয়া সি-৫ বাসস্ট্যান্ড থেকে তা দুঃস্থ ও অসহায় মানুষদের তুলে দেন, উপস্থিত ছিলেন সাংসদের প্রতিনিধিরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *