You cannot copy content of this page

মুকুল রায় কি তবে গ্রেফতার হতে চলেছেন, দিল্লির বাড়িতে কলকাতা পুলিশ

বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের নামে জারি হল গ্রেফতারি পরোয়ানা। চাকরি দেওয়ার নামে একটি প্রতারণার মামলায় সোমবার ব্যাঙ্কশাল আদালত এই নির্দেশ দিয়েছে। মুকুল রায়কে গ্রেফতারির জন্য এক মাসের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে বড়বাজার থানাকে।

বছরখানেক আগে এক রেলকর্মীর কাছ থেকে হিসেব-বহির্ভূত প্রায় ৮০ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়েছিল। পুলিশ জানায়, সেই মামলার তদন্তে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মুকুলকে ডেকেছিলেন তদন্তকারীরা। ওই মামলার বিশেষ সরকারি আইনজীবী তরুণ চট্টোপাধ্যায় জানান, পুলিশের আবেদনের ভিত্তিতে ব্যাঙ্কশাল আদালতের অতিরিক্ত মুখ্য বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট মনোদীপ দাশগুপ্ত এ দিন বড়বাজার থানার ওসি-কে নির্দেশ দিয়েছেন, ২৯ অগস্টের মধ্যে মুকুলকে আদালতে হাজির করাতে হবে। সরকারি আইনজীবী জানান, কল্যাণ রায়বর্মণ নামে শিবপুরের এক বাসিন্দা ২০১৮ সালের ৩১ জুলাই বড়বাজার থানা এলাকায় পুলিশের জালে ধরা পড়েন। তাঁর কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয় ৮০ লক্ষ টাকা। ওই সরকারি কর্মচারীর বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন আইনে মামলা করে বড়বাজার থানা। তদন্তের দায়িত্ব পান অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার (এসি) অসীম আলি। সেই মামলায় আরও চার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। এক তদন্তকারী অফিসার জানান, তদন্তে মুকুলের নাম উঠে আসে। মুকুলের বয়ান নথিভুক্ত করার জন্য তাঁকে তিন বার ডাকা হয়। তিনি হাজির হননি।…

কলকাতা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রেলে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নামে ৮০ লক্ষ টাকার একটি প্রতারণা মামলায় মুকুল রায়ের নাম উঠে আসে। তার পর তিন বার নোটিস (সিআরপিসি-র ১৬০ ধারায় ৩ সেপ্টেম্বর, ১৪ এবং ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮) পাঠানো হয় মুকুল রায়কে। কিন্তু তিনি এক বারও হাজিরা দেননি। এর পর পুলিশ ৩০ জানুয়ারি, ২০১৯-এ ব্যাঙ্কশাল কোর্টের দ্বারস্থ হয়। বিচারক মামলা শোনার পর মুকুল রায়কে ২৮ ফেব্রুয়ারি হাজিরা দিতে নির্দেশ দেন। কিন্তু তিনি আসেননি। এর পর ২৭ মার্চ এবং ২৪ জুনও তাঁকে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কোনও বারই মুকুল হাজিরা দেননি। এ দিন অর্থাৎ ২৯ জুলাই ফের হাজিরার দিন ছিল। কিন্তু এ দিনও মুকুল আদালতে হাজিরা না দেওয়ায় পুলিশের করা গ্রেফতারি পরওয়ানার আবেদন মঞ্জুর করেন বিচারক। সেই গ্রেফতারি পরওয়ানা নিয়ে কলকাতা পুলিশের একটি দল রওনা হয়েছে মুকুল রায়ের দিল্লির রাড়িতে। এদিকে দিল্লি হাইকোর্টে কিছু জটিলতা থাকার কারণে মুকুল রায় আগাম জামিন নিতে পারেন নি বলে সূত্রের খবর। যদি তাই হয় তবে মুকুল রায়ের গ্রেফতারের সম্ভবনা প্রবল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *