You cannot copy content of this page

মহিলা তৃণমূল কংগ্রেস ও অঙ্গনওয়ারি কর্মীদের নিয়ে উত্তরপ্রদেশের ধর্ষণের বিরুদ্ধে রাস্তায় প্রতিবাদে মন্ত্রী চন্দ্রিমা

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ১৩ই অক্টোবর ২০২০ : উত্তর প্রদেশে দলিত কন্যার উপর যে পাশবিক ও নির্মম অত্যাচার চালানো হয়েছে তার প্রতিবাদে এবার রাস্তায় প্রতিবাদে নামলেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। শুধু ধর্ষণ নয়, ধর্ষণের পর তার অঙ্গহানি করে অজ্ঞান অবাস্থায় ফেলে চলে যায় উত্তরপ্রদেশের উচ্চ বর্ণের পিশাচরা। যোগী আদিত্যনাথ উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এই ব্যাপারে ব্যাবস্থা নেওয়া তো দুরস্ত ধর্ষিতার পরিবারকে প্রশাসনিক স্তর দিয়ে হুমকিও দেওয়া হয়। সব থেকে আশ্চর্য্য লাগলো ধর্ষিতা হাসপাতালে ১৫দিন লড়াই করার পর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলে তার মৃতদেহ বাড়ির লোকের কাছে না দিয়ে প্রশাসনিক মহল এক অজানা জায়গায় নিয়ে গিয়ে দাহ করে দেয়। এই বিজেপি সরকার আবার “ভারত মাতা কি জয়” ধ্বনি তুলে বোঝাতে চায় তাঁরা মহিলদের কতটা সম্মান করে আবার “বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও” প্রকল্পের মাধ্যমে বোঝাতে চায় মহিলাদের কতটা উন্নত করতে চায়। এই ঘটনা গোটা ভারতবর্ষে আজ বিরল দৃষ্টান্ত তৈরি করে দিল।

এই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের বিদায়ী পৌরমাতা পাপিয়া হালদার, চৈতালি চ্যাটার্জি সহ অনেকে।এই দীর্ঘ মিছিল হাজরা থেকে শুরু হয়ে ডোরিনা ক্রসিং-এ শেষ হয়। সেখানে প্রতীকী প্রতিবাদ বক্তব্য রাখা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *