You cannot copy content of this page

রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে হু হু করে, দেখে নিন সব জেলায় পরিস্থিতি

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ১১ই জুন ২০২০ : করোনা যখন মার্চ মাসে ভারতে থাবা বসাতে সবে শুরু করেছে তখনই ২২শে মার্চ এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ভারতে সবার আগে লকডাউন ঘোষণা করেন। সেদিন কিন্তু কেউ ধারণাও করতে পারে নি যে জুন মাসে এসে করোনা সংক্রমণ এত বেড়ে যাবে। গোটা মার্চ মাস পশ্চিমবঙ্গ ছিল অনেক নীচে। সেই সময় মহারাষ্ট্র, দিল্লি, গুজরাট, রাজস্থান, কর্নাটক, কেরেলা, তামিলনাডু তালিকায় অনেক উপরের দিকে ছিল। কিন্তু তিনমাস পর চিত্রটা একেবারেই বদলে গেছে। এই মুহুর্তে যদি রাজ্য ভিত্তিক চিত্রটা দেখে যা আমরা নীচে দেখুন

সংক্রমণের এই লকডাউন পরিস্থিতি যখন ৪র্থ দফা শেষ হল ৩১সে মে তখন সংক্রমণের দাপট আরও বেড়ে গেল। এর নেপথ্যের প্রধান কারণ হল কেন্দ্র সরকারের উদ্যোগে পরিযায়ী শ্রমিকদের নিজেদের রাজ্যে পাঠানো।এই পরিযায়ী শ্রমিকরা নিজেদের রাজ্যে ফেরার পর থেকেই এই রাজ্যের সংক্রমণের সংখ্যাটা বাড়তে থাকে। বর্তমানে এই রাজ্যের করোনা সংক্রমণের চিত্রটা খুব ভয়ংকর হয়ে উঠছে। এক নজরে দেখে নিন নীচে দেওয়া জেলা ভিত্তিক ফলাফল।এভাবে যদি বাড়তে থাকে তবে হয়তো ফের আনলক পরিস্থিতি থেকে আবার জুলাই মাসে উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর লকডাউনের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে পশ্চিমবঙ্গকে তথা ভারতবর্ষকে। এই মুহুর্তে ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২,৮৭,৬৭৯ যা বিশ্বে ৬ষ্ঠ স্থান, আজকেই ভারত সেই জায়গা ছেড়ে সরাসরি স্পেন ও ইংল্যান্ডকে টপকে ৪র্থ স্থানে চলে যাবে কারণ প্রতিদিন দেখা যাচ্ছে ভারতে প্রায় ১১, ০০০ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। বর্তমানে ইংল্যান্ড রয়েছে ৪র্থ স্থানে যার করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২,৯০,১৪৩। সেই হিসাবে যদি আজকেও ভারতে ১১,০০০ মানুষ আক্রান্ত হন তবে ভারতের সংখ্যাটা হবে ২,৯৮,৬৭৯।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *