You cannot copy content of this page

টপ ফুড ব্লগার অ্যাওয়ার্ডস ২০২০-র আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হল অ্যাস্টর হোটেলে

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ২৫শে ডিসেম্বর ২০১৯ : ক্যান্ডিড কমিউনিকেশন এবং সিডস হসপিটালিটি দ্বারা পরিচালিত এবং আয়োজিত “টপ ফুড ব্লগার অ্যাওয়ার্ড” তরুণ এবং প্রাণবন্ত ফুড ব্লগারদের দুর্দান্ত কাজের সম্মান ও উৎসাহ প্রদানের একটি প্ল্যাটফর্ম। টপ ফুড ব্লগার অ্যাওয়ার্ডস 2020 তৃতীয়বারের জন্য হতে চলেছে কলকাতায়।অনুষ্ঠানে সম্মানিত হন রয়্যাল থাই কনসুলেটের ডেপুটি কনসুলেট কাসেমসান থংসিরি, থাই কনস্যুলেটের কনসাল মিসেস ভেনাস অ্যাসপাওপুম ও নট স্বভাস্তি – সালি, মিসেস ফারাহ খান, ডিজাইনার ইন্দ্রনিল মুখার্জি, মিসেস ইন্ডিয়া ওয়ার্ল্ড ওয়াইড আকাঙ্ক্ষা মাংলানি সহ অনেকে।

সম্বোধনী ভাষণে টপ ফুড ব্লাগার্স অ্যাওয়ার্ডস-এর কো ফাউন্ডার ও ক্যান্ডিড কমিউনিকেশন-এর ডিরেক্টর পারমিতা ঘোষ বলেন, টপ ফুড ব্লগার পুরষ্কারের তৃতীয় সংস্করণটি অয়োজন করতে পেরে নিজে বেশ খুশি, রন্ধনসম্পর্কীয় এই প্রতিভা আবিষ্কার করে যারা বিশ্বের দরবারে তুলে ধরছে তাদেরও সমাজে একটা মারাত্বক ভূমিকা আছে। তথ্য এবং সংবাদ প্রচারের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ায় আজ এই ব্লগিং দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এই ব্লগিংয়ে যারা অংশগ্রহণ করছেন তাদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এগুলি হ’ল একটি সম্মানজনক বিষয় যা তাদের আলোকে এনে দেয় এবং তাদের স্বীকৃতি দেয়। ভারতে এধরনের বহু ফুড ব্লগিং প্রতিযোগিতা হয় কিন্তু কলকাতায় আমরাই প্রথম শুরু করি। তবে এই অনুষ্ঠানকে সাফল্যমন্ডিত করে তুলতে বিগত বছরে যেভাবে সংবাদমাধ্যম তাদের মাধ্যমের মধ্যে দিয়ে যেভাবে প্রচার করে আমাদের সাহায্য করেছে তা অনশিকার্য।”

সিডস হসপিটালিটি এবং শীর্ষ খাদ্য ব্লগার অ্যাওয়ার্ডসের পরিচালক মিঃ আঙ্কুর সিদ্দিকী নিজে কাজের ব্যস্ততায় উপস্থিত না থাকতে পারলেও ভিডিও কলের মাধ্যমে বলেন, ব্লগিং গত কয়েক বছর ধরে একটি সত্য সামাজিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।আমাদের এই বছরে আরও চমক রয়েছে ফুড ব্লগিং ভ্রাতৃত্বের বিশেষ দাবিতে টানা দু’বছর এবং বর্তমান প্রবণতার কথা বিবেচনা করে টিএফবিএ প্রথমবারের মতো দুটি অতিরিক্ত পুরষ্কার বিভাগগুলি প্রবর্তন করছে টিএফবিএ 3.0 এর জন্য লাইফস্টাইল এবং ফ্যাশন এবং ট্র্যাভেল। থাই কনস্যুলেটের তরফে বলা হয় যে তাঁরা এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পেরে বেশ উৎসাহিত। তাঁরা এমনও বলেন থাইল্যান্ডের কোন খাবার নিয়ে যদি কেউ কিছু লেখালেখি করতে চায় তবে তাঁরা সেব্যাপারে সাহায্য করবে। প্রয়োজনে থাইল্যান্ডেও পাঠানোর ব্যবস্থা করবে। এই প্রতিযোগিতার নমিনেশন শুরু হয়েছে ২০শে ডিসেম্বর থেকে চলবে ২০শে জানুয়ারি পর্যন্ত। তারপরই এই প্রতিযোগিতার মূল পর্ব শুরু হবে। প্রচারে : ক্যানডিড কমিউনিকেশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *