You cannot copy content of this page

আনলকে করোনা প্রতিরোধে ইমিউনিটি শক্তি বাড়ায় প্রোটিনযুক্ত খাবার, লিখছেন অভিনেত্রী প্রিয়া

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ১৭ই জুন ২০২০ : করোনা সংক্রমণ থেকে নিজেকে মুক্ত রাখতে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন বেশি করে প্রোটিনযুক্ত খাবার খেতে তাই তাঁরা বলছেন মাছ, মাংস, ডাল, শাঁক, ডিম, পনীর জাতীয় খাবার খেতে।অভিনেত্রী প্রিয়া দেবনাথ নিজেও তাই মনে করেন।তাই আজ টলিপাড়ার অন্যতম অভিনেত্রী প্রিয়া দেবনাথ আমাদের পাঠকদের জন্য খাবারের রেসিপি নিয়ে এসেছেন যা বেশি মাত্রায় প্রোটিনযুক্ত। দেখে নিন কি কি উপকরণ লাগবে এবং তা রান্না করার প্রণালী। আজকে প্রিয়া আমাদের বলবেন ৩-৪ জনের জন্য “পালং পনীর” করতে গেলে কি কি লাগবে আর কিভাবে করতে হবে।

উপকরণ : পনীর (৫০০ গ্রাম), পালং শাঁক (২ই আঁটি), মাখন (বড় চামচের ৪ চামচ), ঘি (২ বড় চামচ), আদা, গোটা জিরে, রসুন, পেঁয়াজ, ধনে পাতা, জিরেগুঁড়ো, লঙ্কাগুঁড়ো (পরিমান মত), স্বাদ অনুযায়ী লবন।

অভিনেত্রী প্রিয়া বলেন, নিজেকে করোনা মুক্ত করতে বিশেষজ্ঞরা বলছেন অতিমাত্রায় প্রোটিনযুক্ত খাবার খেতে। এতে শরীরে করোনার জীবানু বাসা বাঁধতে পারবে না কারণ আপনার ইমিউনিটি পাওয়ার এই জীবানুর সাথে লড়াই করার ক্ষমতা রাখবে।বাজার থেকে যখনই যাই এনে খাবেন, সব সবজি একটু উষ্ণ গরম জলে কিছুক্ষণ রেখে নিয়ে ভাল করে ধুয়ে খাবেন বা রান্না করবেন।এবার আপনাদের জন্য আমি আজকে “পালং পনীর”-এর উপকরণ (উপর দিয়েছি) এবং তার প্রণালী নিয়ে আলোচনা করবো। একদিকে পালং শাঁকে ভিটামিন যেমন আছে তেমনই পনীরে প্রোটিন আছে।এখন তো লকডাউন অনেকটা শিথিল হয়েছে বর্তমানে আনলক চলছে, তার মানে এখন বাজারে গিয়ে কেনাকাটি করা যাচ্ছে। তাই আনলকে অনেকেই বাইরে যাচ্ছেন। আর বাইরে গেলে করোনা সংক্রমণ থেকে নিজেকে দূরে রাখতে গেলে বেশি করে প্রোটিন খাবার খেতে হবে। মাছ বা মাংস ছাড়াও প্রোটিন খাবার হয় যা নিরামিষ হলেও খেতে সুস্বাদু। দেখুন একবার করে, হোটেলের টেবিলে যেতে হবে না। বাড়িতেই বসে কম খরচে সেই স্বাদ পাবেন।

প্রণালী : প্রথমে পনীরকে ছোট ছোট করে কেটে নিন, তারপর পালন শাঁক ভাল করে একটু গরম জলে ধুয়ে নিতে পারেন অথবা ঠান্ডা জলে ধুয়ে নিতে পারেন। এরপর পালং শাঁকটা গরম জলে ফুটিয়ে নিন ৪ থেকে ৫ মিনিট। এবার পালং শাঁকটাকে মিক্সিতে ফেলে পেস্ট করে নিন। এবার কাড়াইতে একটু ঘি বা মাখন বা স্বাভাবিক তেল দিতে পারেন যেটা সুবিধা। আমি ঘি এবং মাখন একসাথে দেবো। তাতে গন্ধটা ভাল আসবে। এরপর জিরে ফোড়ন দিয়ে রসুন, পেঁয়াজকুচি, আদাকুচি, কাচালঙ্কা (আন্দাজ অনুযায়ী) দিয়ে কিছুক্ষন কড়াইতে সাঁতলে নিন। সাঁতলানো হলে পালং শাঁকের পেস্টটা এবার দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়তে থাকুন।এবার স্বাদ অনুযায়ী লবন, জিরেগুঁড়ো, লঙ্কাগুঁড়ো দিন।এবার পনীরের টুকরোগুলো দিয়ে নেড়ে চেড়ে নিন। সামান্য কিছুক্ষণ রেখে সামান্য ক্রিম দিতে পারেন, ক্রিম না থাকলে টক দই দিলেও হবে। এবার গ্যাস বন্ধ করে ঢেকে রেখে দিন। খাবার আগে সামান্য গরম করে নিয়ে একটু বাটার দিয়ে দিন আর উপরে ধনেপাতা কুচি ছিটিয়ে দিন গারনিশিং করে নিন। ব্যস আপনার পালং পনির তৈরি, এবার খাবারের টেবিলে সকলের প্লেটে গরম গরম পরিবেশন করুন। দেখবেন স্বাদ ও গন্ধে সকলে চেটে পুঁটে খাবে আর শরীরে প্রোটিনের মাত্রাও বাড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *