You cannot copy content of this page

নেপাল দে-র ৫ম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হল সমাজসেবার মধ্যে দিয়ে

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, গড়িয়া স্টেশন, ২রা আগস্ট ২০১৯ : গড়িয়া স্টেশন শুধু নয় এক কথায় বলতে হয় গোটা রাজ্যের বিভিন্ন কোনায় নেপাল দে-র জনপ্রিয়তা ছিল তা সে সাধারণ মানুষ হোক, ব্যবসায়ী সম্পর্ক হোক বা রাজনৈতিক সম্পর্ক হোক। তার কারণ ছিল একটাই তিনি মানুষের জন্য ভাবতেন এবং নিজের সাধ্য অনুযায়ী উপকারের হাত বাড়াতেন। গত ৫ বছর আগে তিনি তাঁর নবগ্রামের নিজ বাসস্থানে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কিন্তু আজও মানুষ তাকে অন্তর থেকে মনে রেখেছে।আজ অনেকেই যারা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে তাদের নেপথ্যে নেপাল দে-র অবদান নেই বলা যাবে না। তিনি যতদিন বেঁচে ছিলেন এলাকায় শান্তি ও নিরাপত্তা বজায় ছিল এবং একই সাথে সমাজ কল্যাণমূলক কাজে নিজেকে যুক্ত রাখতেন, যা আজ প্রতিটা মুহুর্তে মানুষকে মনে করিয়ে দিচ্ছে।তিনি জীবিত থাকাকালীন এলাকার নিরাপত্তা নিয়ে কাউকে ভাবতে হয় নি কিন্তু আজ তার খুবই অভাব বোধ করছে এলাকার মানুষ।গতকাল তাঁর নিজ বাসগৃহে এক স্মরণসভার মধ্যে দিয়ে ৫ম বর্ষের মৃত্যু বার্ষিকী উদযাপিত হয়।এই স্মরণসভায় উপস্থিত ছিলেন তাঁর আত্মীয় পরিজন, অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী ও অনুরাগীরা। প্রতিবছরের মত এবছরও তাঁর জীবনের বহু মুহুর্তের স্মৃতিচারণের মধ্যে দিয়ে তাঁর মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হয়। এই স্মরণসভায় স্থানীয় গিরিবালা অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের পাশে থাকার অঙ্গীকার করেন তাঁর পরিবারের বর্তমান সদস্যরা।বিদ্যাসাগরের জন্ম বার্ষিকীতে এই স্কুলের সকল ছাত্রছাত্রীদের বিদ্যাসাগর সংক্রান্ত সচেতনতার বার্তা দেন সদস্যরা। আমরা তাঁর আত্মার মুক্তি ও শান্তি কামনা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *