You cannot copy content of this page

যুবতীদের বয়সের সাথে শারীরিক কিছু পরিবর্তন নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে উদ্যোগী মিমি দাস

তানিয়া সাহা, এবিপিতকমা, কলকাতা, ৬ই জুলাই ২০১৯ : গত তিন বছর ধরে সমাজসেবার সাথে নিজেকে যুক্ত রেখেছেন সমাজসেবী মিমি দাস। সাম্প্রতিক এক অনুষ্ঠানে ১২ থেকে ১৬ বছর বয়সী মেয়েদের কিছু শারীরিক পরিবর্তনের বিষয়ে তাদের সচেতনতার কারণে জানানো হয়। এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় উত্তর কলকাতার সিটি সিজলার রেস্তোরাঁয়। রেস্তোরাঁর কর্ণধার রাজীব জসোওয়াল নিজেও এই কাজে যুক্ত। অনুষ্ঠানে স্টার ওয়ালফেয়ার সমাজসেবী সংস্থার বাচ্চারা উপস্থিত ছিল এবং সাথে উপস্থিত ছিলেন সৌম্য বক্সি, শক্তিপ্রতাপ সিং, মিসেস ইউনিভার্স (প্ল্যাটিনাম) ২০১৮ সঙ্গীতা সিনহা, মিসেস ইন্ডিয়া আই এ বি ২০১৮ (সেকেন্ড রানার্স) লোপামুদ্রা মন্ডল সহ অনেকে।এই যুবতীদের হাতে বয়ঃসন্ধির কারণে যে প্রক্রিয়া হয়ে থাকে তার জন্য তাদের হাতে স্যানিটারি ন্যাপকিন তুলে দেওয়া হয় এবং তাদের মধ্যাহ্ন ভোজের ব্যবস্থাও করা হয়।এছাড়াও মিমি দাস বেশ কিছু শিশুদের প্রতিদিন খাওয়ানোর ব্যবস্থাও করেন। তিনি বলেন সমাজের বহু শিশু আছে যারা দুবেলা খেতে পারে না তাদের পাশে যদি থেকে একটু খওয়ার ব্যবস্থা করা যায় তবে সমাজে অনেকটা সুরাহা করা যাবে। অভাবের কারণে এই সব শিশুরা একসময় খারাপ কাজে যুক্ত হয়ে পড়ে। যদি আমরা সকলে এভাবে একটু সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে পারি তবে সমাজকে আরও সুন্দর ও মজবুত করে তুলতে পারবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *