You cannot copy content of this page

জলমগ্ন রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড পরিদর্শনে গেলেন নজরুল আলি সহ নরেন্দ্রপুর থানার আই সি সুখময় চক্রবর্তী

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, সোনারপুর, ১৬ই আগস্ট ২০১৯ : স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে যে প্রাকৃতিক দূর্যোগ নেমে আসে তার ধাক্কা সামলাতে সোনারপুর উত্তর বিধানসভা অন্তর্গত রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার জলমগ্ন ৮ নম্বর ওয়ার্ড পরিদর্শন করতে যান রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার সি আই সি নজরুল আলি মন্ডল ও নরেন্দ্রপুর থানার আই সি সুখময় চক্রবর্তী সহ অনেকে। প্রচন্ড বৃষ্টি হওয়ার ফলে জল এতটাই মারাত্বক হয়ে উঠেছে যে তা মানুষের বিপদসীমার উপরে চলে গেছে।পরিবার নিয়ে ঘরে থাকার মত অবস্থায় নেই।৮ নং ওয়ার্ডের মানুষ পরিস্থিত নাগালের বাইরে চলে যাওয়ায় পথ অবরোধ করতে নজরুল আলি মন্ডল ও সুখময় চক্রবর্তী এলাকা পরিদর্শন করেন। এব্যাপারে পুরপিতা তথা সি আই সি কার্তিক বিশ্বাস জানান, আমার ওয়ার্ডের যা ভৌগলিক অবস্থা তাতে আশেপাশের ওয়ার্ডের অতিরিক্ত বর্ষার জল প্রবেশ করার ফলে এই পরস্থিতি তৈরি হচ্ছে। মানুষ আমায় নিকাশি ব্যবস্থার জন্য দাবি করছে ঠিকই কিন্তু নিকাশি ব্যবস্থা করার জন্য আমি বিধায়ক, পুরপ্রধান ও সাংসদকে মেন ড্রেন করার আবেদন করেছি কিন্তু তার মধ্যে স্বাধীনতা দিবস ও রাখিবন্ধন উৎসবের মাঝে এভাবে এক রাতের বর্ষায় কঠিন পরিস্থিত তৈরি হবে বোঝা যায় নি। পাম্প লাগিয়েও কোন লাভ হবে না, ওয়ার্ডের জমা জল কোথায় ফেলবো বুঝতে পারছি না।এক রেল গেটে পাম্প লাগানো যায় কিন্তু তারপর সেই জল কোথায় যাবে তা নিয়েও প্রশ্ন থাকছে। ইতিমধ্যে পুরপ্রধানকে অনুরোধ করেছি একবার সরজমিনে এসে পরিদর্শন করে যেতে কি অসহায় অবস্থার মধ্যে ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের জীবন কাটাতে হচ্ছে। আমার আর কিছু করার নেই। সোনারপুর রোডের দুদিকে আমার ওয়ার্ড তেঘরিয়া থেকে নিশ্চিন্তপুর সর্বত্রই একই দৃশ্য কোথায় কি করবো বুঝতেই পারছি না। কোথায় কোথায় পাম্প লাগাবো? জনজীবন স্তব্ধ হয় গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *