You cannot copy content of this page

বাংলার যুবশক্তির রাজ্য কমিটিতে আরও পাঁচ জন নিযুক্ত

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ৩০শে জুলাই ২০২০ : যুবশক্তির যুবযোদ্ধাদের নিয়োগ নিয়ে সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জি সহ সর্ব ভারতীয় যুব তৃণমূল সভাপতি খুব জোর দিয়েছেন।এর আগে যুবশক্তির ৫ জোনের রাজ্য কমিটিতে ১০ জনের সদস্য ছিল।কিন্তু এবার সেখানে আরও ৫ জন নিযুক্ত করলেন খোদ অভিষেক ব্যানার্জি। জোন ১ মতিলাল কুজুর (আলিপুরদুয়ার), জোন ২ সুপ্রকাশ গিরি (অখিল গিরির পুত্র, পূর্ব মেদিনীপুর), জোন ৩ শান্তনু ব্যানার্জি (হুগলী), জোন ৪ সৌম্য বক্সি (স্মিতা বক্সি-র পুত্র, উত্তর কলকাতা) ও জোন ৫ রাজীব ঘোষাল (বাঁকুড়া)।গতবারের ১০ জনের সদস্যের সাথে এবার আরও পাঁচজনকে যুক্ত করা হল।

এই নতুন নিযুক্ত পাঁচ জনের মধ্যে দুজন বাদ দিয়ে সকলেই একসময় যুবা সংগঠনের সাথে যুক্ত ছিলেন। দুজনের মধ্যে অখিল গিরি-র পুত্র সুপ্রকাশ গিরি। তবে অভিষেক ব্যানার্জি কি ইঙ্গিত করছেন সেই পুরানো যুবা কর্মীদের ফের দায়িত্ব দিয়ে ফিরিয়ে আনতে চাইছেন? একসময় অভিষেক ব্যানার্জির মস্তিষ্ক প্রসূত সংগঠন হল যুবা যা পরবর্তীতে ভেঙে দিয়ে যুব সংগঠনে নেওয়া হয়েছিল। আগামী নির্বাচনের আগে এটাই এখন দেখার এই যুবশক্তিকে কিভাবে দায়িত্ব ভাগ করে দেবেন। নির্বাচনে যুবশক্তির ভূমিকা কতটা বলিষ্ট হবে?

জোন ৪-এ (দঃ ২৪ পরগণা, উত্তর ২৪ পরগণা ও কলকাতা) এবার দায়িত্ব ভাগ করে নিলেন দেবরাজ চক্রবর্তী, অনিরুদ্ধ হালদার ও সৌম্য বক্সি।এই তিনজনের মধ্যে দেবরাজ চক্রবর্তী উত্তর ২৪ পরগণার যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতির দায়িত্ব পেয়েছেন এবং সৌম্য বক্সি যুব তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য কমিটিতে নেওয়া হয়েছে, কিন্তু গোটা রাজ্যে যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সব স্তর থেকে কার্যকরি সভাপতির পদ তুলে দেওয়া হয়েছে।বাকি অনেক কার্যকরি সভাপতিদের রাজ্য কমিটিতে সদস্য করা হলেও দঃ ২৪ পরগণার কার্যকরি সভাপতি অনিরুদ্ধ হালদারকে রাজ্য কমিটিতে রাখা হয় নি। তবে কি অভিষেক ব্যানার্জি যে তিনজন কার্যকরি সভাপতিকে রাজ্য কমিটিতে সদস্য করেন নি তাঁদের নিয়ে অন্য ভাবে কোন বলিষ্ঠ চিন্তা করছেন? উঃ কলকাতায় সৌম্য বক্সিকে দায়িত্ব দিয়ে তবে কি আগামীদিনে দঃ কলকাতা ও দঃ ২৪ পরগণা অনিরুদ্ধ হালদারের জন্য ছেড়ে রাখতে চাইছেন খোদ অভিষেক ব্যানার্জি ?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *