You cannot copy content of this page

মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সহযোগিতায় কলকাতা কর্পোরেশনের ১১৩ নং ওয়ার্ডে গোপাল রায়ের উদ্যোগে আয়োজিত হল রক্তদান শিবির

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ২৮শে জুন ২০২০ : বর্তমানে রক্তের খুব প্রয়োজন কারণ সারা দেশে করোনা যে ভাবে থাবা বসিয়েছে তাতে আক্রান্তদের সুস্থ করার জন্য রক্তের চাহিদা বেড়েছে। এছাড়া প্রতিবছর এই গরমকালে রক্তের চাহিদা বাড়ে। তাই যখন দেশ সহ রাজ্যে এরকম একটা লকডাউন পরিস্থিতিতে মানুষ দুরত্ব বজায় রাখতে ব্যস্ত, যেখানে কোন অনুষ্ঠান বাড়িতে ৫০ জনের বেশি আমন্ত্রিত হবে না সেখানে ক্লাব বা স্বচ্ছাসেবী সংগঠন বড় করে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করতে পারছে না, তবে এই চাহিদা মিটবে কিভাবে?

গোটা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ১ কোটির উপর মানুষ এবং এই সংক্রমণে মারা গেছে ৫,০২,৯৫৭ কিন্তু সুস্থ হয়েছে ৫৫,১৩,৫৯৮। ভারতে আক্রান্ত ৫,৪৮,৮৬৯ যার মধ্যে মারা গেছে ১৬,৪৮৭ এবং সুস্থ হয়েছে ৩,২১,৭৭৪ আর পশ্চিমবঙ্গের আঙ্কটা অনেকটা স্বস্তির। এই রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ১৬,২৮৩ যার মধ্যে মারা গেছে ৬৩৯ জন এবং সুস্থ হয়েছে ১১,১৯৩জন।মানে এই রাজ্যে সুস্থ-র হার ৬৪.৭৬%।কিন্তু রাজ্যে রক্তের চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে। তাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই চাহিদাকে মোকাবিলা করতে রক্তদান শিবিরের জন্য ১০টি অত্যাধুনিক ভ্রাম্যমান শীততাপ নিয়ন্ত্রিত ভ্যানের সূচনা করেছেন। গোটা রাজ্যে এই ভ্যান রক্তদান শিবিরে ব্যস্ত।

একইভাবে টালিগঞ্জ কেন্দ্রের রূপকার বিধায়ক ও মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস নিজে উদ্যোগ নিয়ে তাঁর বিধানসভা কেন্দ্রে কলকাতা কর্পোরেশনের সব কটা ওয়ার্ডে এই ভ্রাম্যমান ভ্যানের সাহায্যে রক্তদান শিবিরের জন্য সহযোগিতা করেছেন। সাম্প্রতিক ১১৩ নং ওয়ার্ডে প্রাক্তন পুরপিতা গোপাল রায়ের উদ্যোগে এক রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়। এই শিবিরে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক ও মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। তিনি প্রথমে চীন সীমান্তে শহীদ সৈনিকদের প্রতি মাল্যদান ও মোমবাতি জ্বালিয়ে শ্রদ্ধা জানান এবং একইসাথে তৃণমূলের প্রয়াত বিধায়ক তমোনাশ ঘোষের প্রতিও শ্রদ্ধা জানান। এরপর তিনি বৃক্ষরোপণ কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেন কারণ সাম্প্রতিক আমফান ঝড়ে প্রচুর গাছের ক্ষতি হয়েছে। পরিবেশের সমতা বজায় রাখতে এই বৃক্ষরোপণ করা খুবই প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বোরো চেয়ারম্যান তারক চক্রবর্তী, মিতালি ব্যানার্জি ও তপন দাশগুপ্ত এবং প্রাক্তন পুর প্রতিনিধি বিশ্বজিত মন্ডল, অনিতা কর মজুমদার, অর্চনা সেনগুপ্ত সহ অনেকে।

মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস রক্তদাতাদের সম্বর্ধনার মধ্যে দিয়ে হাতে মানপত্র তুলে দেন।অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন তারকেশ্বর চক্রবর্তী, তপন দাশগুপ্ত, বিশ্বজিত মন্ডল সহ অনেকে।তাঁদের বক্তব্যে উঠে আসে এই করোনা সংক্রমনের ও আমফান দুর্যোগের মোকাবিলায় মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস নিজে উপস্থিত থেকে টালিগঞ্জ ও যাদবপুর বিধানসভার মানুষকে তুলনাহীনভাবে পরিষেবা দিয়েছেন। রক্তদান শিবিরে ৫০ জন রক্তদান করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *