You cannot copy content of this page

বাংলা ফুটবলে নতুন প্রতিভা খুঁজতে “জি বাংলা ফুটবল লীগ” সাথে এক ঝাঁক নায়িকা ও মহারাজ

অম্বর ভট্টাচার্য, এবিপিতকমা, কলকাতা, ২০শে জুন ২০১৯ : বাংলা ফুটবল চিরকালই ভারতের মধ্যে নজর কেড়েছে। কিন্তু বর্তমানে বাংলার ফুটবল মাঠে সেই বাঙ্গালিদের প্রাধান্য ধীরে ধীরে হারাতে বসেছে। কলকাতার ফুটবল লীগে থাবা বসিয়েছে বিদেশীরা, মানে বাংলার ফুটবল এখন একপ্রকার বিপদগামী আর তাই “জি বাংলা” এগিয়ে এসেছে প্রথমবার “জি বাংলা ফুটবল লীগ” নিয়ে। এর পিছনে একটাই উদ্দেশ্য, বাংলা থেকে ফুটবলের নতুন প্রতিভার খোঁজ। এই লীগে যারা অংশগ্রহণ করছে তারা সকলেই ১৯ বছরের নীচে। এই টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছে কোয়েস ইস্ট বেঙ্গল ক্লাব, মোহন বাগান ক্লাব, মহঃ মেডান স্পোর্টিং ক্লাব, এরিয়ান ফুটবল ক্লাব। এছাড়াও আছে ১৬টা বিভিন্ন জেলার ফুটবল দল যেমন কোচবিহার কমান্ডোস, ওয়াইল্ড স্টোন মানভুম ম্যাজিশিয়ান, ডেনভের শিলিগুড়ি স্ট্রাইকার, নদীয়া নায়কস, সানরাইস বর্ধমান ড্রিবলার্স, দুরন্ত দিনাজপুর (উত্তর), হুগলী মার্শালস, কমপ্লান হাওড়া একাদশ, ডেয়ারিং দিনাজপুর (দক্ষিণ), আদি ঢাকেশ্বরী বস্ত্রালয় দুরন্ত দক্ষিণ ২৪ পরগণা, পূর্ব মেদিনীপুর ফাইটার্স, চন্দননগর চ্যাম্পিয়নস, ক্যামেলিয়া বীরভূম নোবেলস, বাঁকুড়া ব্যাটেলিয়ন, আদামাস ইউনিভার্সিটি ২৪ পরগণা (উত্তর) মাস্টার্স, এয়ারটেল আলিপুরদুয়ার অগ্রনী। উত্তর ২৪ পরগণা, আলিপুরদুয়ার, হুগলী, হাওড়া, বীরভূম, বর্ধমান তাদের প্রতিভার জন্য ইতিমধ্যে নজর কেড়েছে। আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে মুকুন্দ কায়রে (ইন্টারন্যাশনাল হেড- স্পোর্টস বিজনেস, জিল) জানান, জি বাংলা ফুটবল লীগ প্রথমবার ভারতের মধ্যে সব থেকে বড় কচিকাঁচাদের ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে। এই প্রতিযোগিতায় আঞ্চলিক স্তর থেকে অনেক তাজা প্রতিভা উঠে আসবে যারা আগামীদিনে ভারতের প্রতিনিধিত্য করতে পারবে। কাল দুটো সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে এবং ২৩শে জুন মোহনবাগান মাঠে ফাইনাল হবে। তবে সেমিফাইনাল ও ফাইনালে বিশেষ আকর্ষণ তো থাকবেই। মাঠে যেমন থাকবে ঢাকির দল তেমন থাকবে সায়ন্তিকার চোখ ধাঁধানো নৃত্য প্রদর্শনী ও অনুপমের গান আর এর সাথে যদি মাঠে বাংলার যুবরাজ মানে মহাজার থাকে তো আর কোন কথাই নেই। মাঠে উপস্থিত থাকবে সৌরভ গাঙ্গুলি। এছাড়াও প্রতিটা দলের সাথে ব্র্যান্ড এম্বাসেডাররা মানে জনপ্রিয় সুন্দরী নায়িকারা তো মাঠে থাকবেই।সেমিফাইনালের দিন মাঠে না থাকলেও ফাইনালের দিন মাঠে উপস্থিত থাকবে রূপাঞ্জনা, সুদীপ্তা চক্রবর্তী, অলিভিয়া, প্রমিতা, সোনালি, তন্নি, সন্দীপ্তা সহ অনেকে। এই গোটা টুর্নামেন্টে সেরা খেলোয়াড় বা আরও প্রতিভাদের খোঁজার দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে প্রাক্তন সব বিখ্যাত ফুটবলারদের যেমন বিদেশ বসু, ভাস্কর গাঙ্গুলি, প্রশান্ত চ্যাটার্জি সহ অনেকে। আজ সাংবাদিক সম্মেলনে ইস্ট বেঙ্গল, মোহনবাগান, এরিয়ান ও উত্তর ২৪ পরগণা দলের কোচ ও অধিনায়করাও উপস্থিত ছিলেন। তারা জানান, আমরা এখানে কোন মন্তব্য করবো না কারণ আমাদের থেকে অনেক সিনিয়র সব ফুটবলাররা উপস্থিত আছেন যাদের কথা শোনার জন্য আমরা সকলে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি এছাড়া আমরা সকলে কোচের পরামর্শে মাঠে খেলবো, যা হবে সব মাঠেই উত্তর দেব। এটা বলতে পারি জি বাংলা একটা খুব বড় প্ল্যাটফর্ম দিয়েছে আমাদের যা দিয়ে আমরা আমাদের স্বপ্ন পূরণ করতে পারবো। আমরা খেলার জন্য ঠিকঠাক খেলার মাঠ পাই না, খেলতে গেলে যে খাবারটা লাগে সেটা ঠিকমত পাই না কিন্তু আমাদের একটা নেশা ফুটবল খেলা আর সেই তাড়নায় আমরা আজ নিজেদের স্বপ্নকে বাস্তব করতে মরিয়া। প্রচারে : রনো। ছবি : গোপাল দেবনাথ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *